নিজের নাম্বার বের করার উপায়। কিভাবে আপনার সিমের নাম্বার জানবেন?

আসসালামু আলাইকুম! কেমন আছেন সবাই, আশা করি সবাই ভাল আছেন। আমাদের মধ্যে অনেকেই নিজের নাম্বার বের করার উপায় জানতে চাই। বিভিন্ন সময়ে নিজের মোবাইল নাম্বার বের করতে গিয়ে অনেক সমস্যায় পড়ে থাকে। অনেক সময় নতুন সিম কার্ড কেনার পর আমাদের নাম্বার মনে থাকেনা। তবে পুরাতন সিম এর নাম্বার আমরা অধিকাংশ সময় মনে রাখি।

নিজের নাম্বার বের করার উপায়

আজকের এই ব্লগে আমরা প্রতিটি সিম কার্ডের নিজের নাম্বার বের করা শিখব। প্রতিটি সিম কার্ডের নিজের নাম্বার বের করার জন্য নিজস্ব কোড রয়েছে। তাই বাংলাদেশের প্রতিটি মোবাইল অপারেটরের কোড গুলো সম্পর্কে আমরা জেনে নিব। এর ফলে আপনার নিজের নাম্বার বের করতে পারবেন। আজকের এই আর্টিকেলটি পড়লে আপনার নিজের নাম্বার খুব সহজে বের করে ফেলতে পারবেন।

আপনি চাইলে এই কোড গুলো মুখস্ত করে ফেলতে পারেন। পরবর্তীতে যেকোনো সময় আপনার এই কোডগুলো কাজে লাগতে পারে। কারণ বারবার মোবাইল নাম্বার মুখস্ত করার চাইতে এই কোড গুলো মুখস্থ করা অনেকটা সহজ। এর ফলে আপনি যেকোন সিমের নাম্বার বের করতে পারবেন। 

বাংলাদেশে মোট পাঁচটি মোবাইল অপারেটর কোম্পানি রয়েছে। আমরা বিভিন্ন কোম্পানির মোবাইল সিম ব্যবহার করে থাকি। সিম কার্ডের মাধ্যমে সাধারণত এক মোবাইল থেকে আরেক মোবাইলে ফোন করা যায়। আমরা অডিও কলে কথা বলার জন্য সিম কার্ড ব্যবহার করে থাকে। এছাড়াও স্মার্টফোনগুলোতে ইন্টারনেট ব্যবহার করার জন্য সিম কার্ডের প্রয়োজন পড়ে।

সকল সিমের নাম্বার বের করার কোড

তবে ইন্টারনেট ব্যবহার করার জন্য ওয়াইফাই ব্যবহার করা যায়। বর্তমান সময়ে অধিকাংশ মানুষই স্মার্টফোনে ব্যবহার করে থাকেন। তারপরও সিমকার্ড আমাদের খুবই প্রয়োজনীয় একটি জিনিস। কারণ সিমকার্ড ছাড়া একটি ফোনকে একদমই ফাঁকা মনে হয়। কারণ ফোন দিয়ে যদি দরকার এই মুহূর্তে কাউকে ফোন করা না যায়। তাহলে সেটি ফোন দিয়ে কি হবে।

  • গ্রামনিফোন – *2#
  • বাংলালিংক – *511#
  • এয়াটেল – *121*6*3#
  • টেলিটক – *511#
  • রবি – *140*1*4#

কেন নিজের নাম্বার বের করতে হয়

আমরা ফোনকে যেমন বিনোদনের জন্য ব্যবহার করতে পারি। ঠিক তেমনিভাবে প্রয়োজনীয় কিন্তু ব্যবহার করি। সাধারণত যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবেই মোবাইল ফোনের ব্যবহার শুরু হয়। সেই মোবাইল ফোনে যোগাযোগ আদান-প্রদান করার জন্য নির্দিষ্ট একটি নাম্বারের প্রয়োজন হয়। আর সেই নির্দিষ্ট নাম্বারটি সিম কার্ডের মাধ্যমে ব্যবহার করা হয়। এখানে আমি আপনাদের সাথে প্রতিটি অপারেটরের সিম কার্ড দিয়ে দিলাম। এগুলোর মাধ্যমে আপনার নিজের নাম্বার খুব সহজে বের করতে পারবেন।

উপসংহার

আশা করি আপনার আর কখনো নিজের নাম্বার বের করা নিয়ে সমস্যা হবে না। নিয়মিত এরকম প্রযুক্তিবিষয়ক বিভিন্ন টিপস পেতে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন। আমাদের এই ওয়েবসাইটে বিভিন্ন প্রযুক্তি বিষয়ক সমস্যা নিয়ে লেখালেখি করে থাকি। প্রযুক্তির ছোঁয়া সকলের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ায় আমাদের মূল উদ্দেশ্য।

Leave a Comment