ক্রিয়ার কাল – বিসিএস প্রশ্ন ২০২২

আসসালামু আলাইকুম!

কেমন আছেন সবাই, আশা করি ভাল আছেন। আজকে আমরা ক্রিয়ার কাল – বিসিএস প্রশ্ন ২০২২ এর দ্বিতীয় পর্বে চলে এসেছি। আজকে পর্বে হচ্ছে বর্তমান কালের মধ্যে আমরা। যে ব্যক্তি উপস্থিত অতীতকালে প্রথম পর্বের ক্লাসে আমরা পড়েছিলাম। বর্তমানে আমরা সেই রকম তাই দেখতে পাব।

তবে কিছু ভিন্নতা থাকবে সেদিনই আমরা আলোচনা করব। তো হবেই ক্লাসের প্রথমেই যেটা বলতে চাই, সেটা হচ্ছে বইয়ের মধ্যে দেওয়া আছে। সংগ্রহ রয়েছে সেই সকল সম্ভাবনাকে আমরা বর্জন করব। আমরা মূলত আজকের পর্ব প্রথমত পড়বো। তারপরে বেশ কিছু বিশিষ্ট প্রয়োগ রয়েছে, যেমন সাধারন বর্তমানে বেশি সক্রিয়।

ক্রিয়ার কাল – বিসিএস প্রশ্ন ২০২২

নিত্যবৃত্ত বর্তমান বিশিষ্ট প্রয়োগ রয়েছে, সেগুলো আমরা দেখার চেষ্টা করব। আমরা প্রথমেই দেখে আসি বর্তমানকালের চেনার উপায় গুলো। কিভাবে বের করতে হয় আগের পদ্ধতি। সেটা হচ্ছে সেখানে তুই বলে সম্বোধন করব যেকোনো ক্রিয়াপদকে। উপায় কি হবে দেখি আমরা এখানে তা দেখছি বলা। যখন তুই বলে সম্বোধন করছি, তুই বল এবার তার সাথে যে অতিরিক্ত রয়েছে।

সেটাই হচ্ছে আমার চেনার উপায়। সেগুলো কে আমরা যখন বের করছি, তখন কিভাবে করছি। তিন পুরুষ আমি বলেছি একটা হচ্ছে

  • উত্তম পুরুষ
  • মধ্যম পুরুষ
  • অন্য পুরুষ

প্রথমে বললাম যে সে বলে, তুমি বলো, আমি বলি, এইখানে কি হয়ে গেল। কি এটা হচ্ছে আমার চেনার উপায়। তোর পরে যদি অতিরিক্ত থাকে তাহলে সেটা এরকম হবে। এরপর আমরা দেখতে পাচ্ছি যে এখানে একটু বিদ্যুৎ নেই। কিন্তু তার মানে কি বর্তমান কালকে তিন প্রকার। বর্তমানকালে কিন্তু তাহার উপকারী। নিত্যবৃত্ত অবশ্যই রয়েছে, তবে আমরা নেতৃত্ব আলোচনা টা যদি একটু এখানে।

এসে মানে বিশিষ্ট প্রয়োগ আলোচনা করব। এখানে এসে যদি আমরা আলোচনা করি। তাহলে আরো ভালোভাবে বোঝানো যাবে। তো সেই কারণে আলাদা করে আমি কোন চিহ্ন পারিনি। যে তুমি কোন আলাদা করে চেনার উপায় দেখাচ্ছি না। তার কারণে আমি কোন ধরনের লাইন আশা করি। আপনাদের কাছে বিষয়টা ক্লিয়ার।

ঘটনা ঘটেতোর পরে যদি অতিরিক্ত থাকে, তাহলে সেটা এরকম হবে। এরপর আমরা দেখতে পাচ্ছি যে, এখানে একটু বিদ্যুৎ নেই। কিন্তু তার মানে কি। বর্তমান কালকে তিন প্রকার। না বর্তমানকালে কিন্তু তাহার উপকারী নিত্যবৃত্ত অবশ্যই রয়েছে তবে আমরা নেতৃত্ব আলোচনা। যদি একটু এখানে এসে মানে বিশিষ্ট প্রয়োগ আলোচনা করব। এখানে এসে যদি আমরা আলোচনা। করি তাহলে আরো ভালোভাবে বোঝানো যাবে।

সেই কারণে আলাদা করে আমি মৃত্যুর জন্য কোন চিহ্ন পারিনি । যে তুমি কোন আলাদা করে চেনার উপায় আলাদা করে দেখাচ্ছি না। তার কারণে আমি কোন ধরনের লাইন আমি লিখিনি। আশাকরি আপনাদের কাছে বিষয়টা ক্লিয়ার ঘটনা। ঘটে ছোবল ছি আমরা যেটা অতীতকালে বলেছিলাম।

অতীতকালে এটা বলেছিলাম ক্রিয়ার কাল – বিসিএস প্রশ্ন ২০২২। যে পুরাঘটিত বর্তমান কালের মধ্যে ঘটমান কালের মধ্যে পার্থক্য নির্ণয় করে। সবচেয়ে কার একটা খেয়াল করে।  এখানে কিন্তু ঠিক আছে।  এখানে সে বলেছে এই হচ্ছে আমাদের বের করার পদ্ধতি টা। অনেক সহজ এবং, পাশাপাশি আমরা ওই যে যেটা বলেছিলাম। সেটা হচ্ছে যে সাধু নির্ণয় করার পদ্ধতি।

কে সাধারনত পদ্ধতি কিন্তু আগের মতোই হয়েছে। তবে মনে রাখতে হবে ,এই সাধনার করতে গেলে কিন্তু সাধারণের বেলায় সাধারণত একই রকম থাকে। সেখানে পরিবর্তন হয়না। পরিবর্তন হয়, কিন্তু ঘটনা উপড়াতে এখানেও হচ্ছে ইয়াহিয়ার কিসের পরিবর্তে একাজগুলো পরিবর্তে পরিবর্তে আমরা কি করতে পারি। আমরা একটু উদাহরণ,

দেখতে পাই তুমি বলিতেছ। আমি বলিতেছি বাদ দেয়া হবে না ।ঠিক আছে, তুমি আছো আমি আছি ঠিক আছে ।শুধুমাত্র একটা যুক্ত করতে হয়। যুক্ত করার প্রচেষ্টা ,কবিতা আলোচনা করে নিলাম। নির্ণয় করা সম্ভব ক্রিয়ার কাল ,তাহলে কিন্তু আমাদের অনুষ্ঠানটা আরো অনেক ভাল হয়। তাহলে দেখতে পাচ্ছি, এখানে সাধারন বর্তমানে কিছু বিশিষ্ট প্রয়োগ আর নিত্যবৃত্ত বর্তমান বর্তমান এর কিছু বিশিষ্ট ,প্রয়োগ সাধারণ বর্তমান এর ভিতরে কিছু বিশিষ্ট প্রয়োগ আমরা দেখতে পাচ্ছি।

প্রতিনিয়ত দেখতে পাচ্ছি অনুমতি প্রার্থনা যদি কোনো অনুমতি প্রার্থনা হয়। তবে এখন আসি এই অনুমতি প্রার্থনা, এখানে কি হবে সেটা সাধারণ বর্তমান হবে।তাহলে কিন্তু আমাদের অনুষ্ঠানটা আরো অনেক ভাল হয়। তাহলে দেখতে পাচ্ছি এখানে ,সাধারন বর্তমানের কিছু বিশিষ্ট প্রয়োগ আর নিত্যবৃত্ত, বর্তমান বর্তমানের কিছু বিশিষ্ট প্রয়োগ। সাধারণ বর্তমানে ভিতরে কিছু বিশিষ্ট প্রয়োগ।

আমরা দেখতে পাচ্ছি প্রতিনিয়ত দেখতে পাচ্ছি। অনুমতি প্রার্থনা যদি কোনো অনুমতি প্রার্থনা হয় ।তবে এখন আসি এই অনুমতি প্রার্থনা, এখানে কি হবে সেটা সাধারণ বর্তমান হবে উদ্বৃতি না। সেই ক্ষেত্রে গেলে তাকে কি বলতে হবে। সাধারণ বর্তমান বলতে হবে দুঃখিত হয় ।প্রতি নিষ্ঠা কি প্রত্যেক বৃষ্টি হচ্ছে একদম সরাসরি দেখছি এরকম কোন একটা বিষয় হিসেবে।

আমনে কীরকম হচ্ছে এরকম যদি হয়ে থাকে। সেই ক্ষেত্রে কিনসে তাকে কি বলতে হবে। সাধারণ বর্তমান বলতে হবে। আমি তো বলেছি দেখেছি বলতো এটা, কি বলতেছি তারপরও কি বলতে হবে ।সাধারণ বর্তমান বলতে হবে তা আশা করি। আপনারা বুঝতে পেরেছেন। এরপর যদি দেখতে পাই, নাই এই ধরনের শব্দ যোগে যদি কি হয়।

যদি দেখতে পায় তাহলে কি হবে। আমি বলছি যে বাবা গতকাল হাটে যাননি।এমনকি প্রত্যক্ষ বুদ্ধ হয়েছে। এরকম যদি হয়ে থাকে। সেই ক্ষেত্রে কিনসে তাকে, কি বলতে হবে সাধারণ বর্তমান বলতে হবে। আমি তো বলেছি দেখেছি দেখেছি অসত্য, এটা কি বলতেছি তারপরও কি বলতে হবে।

সাধারণ বর্তমান বলতে হবে আশা করি। আপনারা বুঝতে পেরেছেন। এরপর যদি দেখতে পাই নাই। এই ধরনের শব্দ যোগে যদি, কি হয় যদি দেখতে পায়। তাহলে কি হবে আমি বলছি যে, বাবা গতকাল হাটে যাননি। বাদ যায়নি এরকম যদি বলি নাই। যখন এই গুলো যদি হয়, সে ক্ষেত্রে কিভাবে সে ক্ষেত্রেও কিন্তু সে গুলোকে আমরা বসে থাকব হচ্ছে।

সাধারণ বর্তমান সাধারণত এই ধরনের যেন, যদি যখন আমাদের শর্তমূলক কোন একটা অব্যয়, আমরা শর্তমূলক ব্যবহার করি। খুব সিম্পল জটিল বাক্যে বাক্যে আমরা এই ধরনের শর্তগুলো কল ব্যবহার করে থাকে। দুটি উধারণ দেখি যেমন যখন তুমি আসবে তখন আমি যাব। তারপর যদি তুমি আসো। তাহলে আমি আসব এই ধরনের বাক্য গুলো যেন দেখতে পাই।

 তাহলে কিন্তু অবশ্যই তাকে সাধারণ বর্তমান বলবো ক্রিয়ার কাল – বিসিএস প্রশ্ন ২০২২। তো সাধারন বর্তমানে আমরা এরকম হবে। জানিনা করতে পারব, তার পাশাপাশি এই বিষয়গুলো একটু খেয়াল রাখবো। এরপর চলে আসি যেটা আমি লিখিনি এখানে নিত্যবৃত্ত অতীত  বর্তমান ক্রিয়াপদ একদম হুবহু সাধারণত তোমাদের মতই হয়। কিন্তু একই রকম হলে সাধারণ। বর্তমান মতো হলেও ওই বাক্যটা মনে হয়।

সেটা কিরকম আমি বললাম যে সে খেলে খেলে কিন্তু সাধারণ বর্তমান বোঝালো সাধারণ বর্তমান শেভরন বর্তমান ক্রিয়াপদ। কী খেলে খেলে খেলে ক্রিয়াপদ এর মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। পার্থক্য বাক্যে বাক্যে প্রতিনিয়ত নিয়মিত এই কথাগুলো করা হয়।

তখন সেটা মূলত হচ্ছে অভ্যস্ত তা কোথায় অবস্থিত। বর্তমান কাল হয়ে থাকে আবার যদি কখনো সত্য প্রকাশ হয়। সে কি রকম হয়ে থাকে যেমন পৃথিবী চাঁদের থেকে বড়। সন্ধ্যায় সূর্য অস্ত যায় এই কথাগুলো কিন্তু স্থায়ী সত্য প্রকাশ পায়। এই চিরন্তন সত্য কিন্তু বর্তমান হবে। তার ঐতিহাসিক বর্তমান বলা হয়ে থাকে।

যে কোন ঐতিহাসিক দিন যদি বলা হয়, সেই ক্ষেত্রে ঐতিহাসিক দিন তারিখ গুলো সবসময় কি হয়। ওই দিনগুলো কিন্তু পৃথিবীতে বর্তমান হাজার। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল এবং বলা হয় তখন তার কথা ছিল। কিন্তু এটা অবশ্যই হবে কারণ ওই দিন। তারিখ আশা করি আপনারা খুব ভাল করে মনে রাখতে পারবেন। এরপর তার মধ্যে যদি চলে আসে অনেক সময় দেখা যায়।

যেমন পৃথিবী চাঁদের থেকে বড়, সন্ধ্যায় সূর্য অস্ত যায়। এই কথাগুলো কিন্তু স্থায়ী সত্য প্রকাশ পায়। এই চিরন্তন সত্য কিন্তু বর্তমান হবে। তার ঐতিহাসিক বর্তমান বলা হয়ে থাকে। একটা বাক্য যদি বলি, আচ্ছা আমাদেরকে সুদিন আসবে আর কি। কোনদিন সুদিন ফিরে আসবে এই বাক্যটা বললাম। এই বাক্যটা মূলত আমাদের কি করছে। এই বাক্যটা মূলত আমাদেরকে অনিশ্চয়তার মধ্যে ফেলে দিচ্ছে।

এই ধরনের কোন বাক্য আমাদেরকে অনিশ্চয়তার মধ্যে ফেলে দেয়। তাহলে কিন্তু আমরা সেই বাক্যটা বোঝার চেষ্টা করেছি। পাশাপাশি আমরা কিছু বিশিষ্ট প্রয়োগ রয়েছে, সেগুলো দেখানোর চেষ্টা করেছি। এই সকল বিষয় যদি আমরা খেয়াল রাখি, তাহলে কি আমরা খুব সহজেই পেরে যাব।

আশা করি আপনাদের অনুষ্ঠান করবেন। তখন সেই ক্ষেত্রে অনুশীলনের সময় আপনারা এই বিষয়গুলো একটু মাথায় রাখবেন। এগুলোর কারণে দেখা যায় যখন চলে আসে। তখন এরকম সমস্যায় পড়ে যায় দিয়ে যখন প্রশ্ন আসে। শুধুমাত্র প্রিয়া বল দিকে তাকালেই হয়না। তার পাশাপাশি কিন্তু সেখানে আরবের দেখতে হয়, সেগুলো দেখে সিদ্ধান্ত নিতে হয়। চক্করে শুধুমাত্র চেনার উপায় নেই।

আমার চেনার উপায় আমি যদি এই বিষয়গুলো মাথায় রাখি। তাহলে কিন্তু আমার উত্তরটা একদম পরীক্ষার হলে, আমি সঠিক করে আসতে পারি। একদম নিজে জেনে বুঝে আমি জানি যেটা সঠিক আমি সেটাই উত্তর দিব। সন্দেহপ্রবণতা নিয়ে কখন আমরা পরিবহন থেকে বেরোতে হবে না।

আশা করি আজকের ক্লাসের মাধ্যমে বর্তমান কালে যত সমস্যা সকল সমস্যাগুলো সলভ করতে পেরেছি। আমরা পরবর্তী র্পব তৃতীয় পর্বের সেখানে আমরা ভবিষ্যৎ আলোচনা করব। কিছু প্রশ্নোত্তর নিয়ে আমরা সেখানে থাকবো। আশা করি সেই র্পব অবশ্যই দেখবেন। সেই র্পব দেখার আমন্ত্রণ জানিয়ে আজকের মত এখানেই বিদায় নিচ্ছি ।

 

যেকোনো প্রয়োজনে আমার সাথে যোগাযোগ করুন 

facebook contact me

 

আমার আরো অন্যান্য পোস্ট 

বিসিএস প্রশ্ন- ক্রিয়ার কাল || BCS Question – Verb tense

ধন্যবাদ সবাইকে 

Leave a Reply

Your email address will not be published.